• ৯ই ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ২৪শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ , ৫ই জমাদিউল আউয়াল, ১৪৪৩ হিজরি

কমলগঞ্জে ইউপি সদস্যকে কুপিয়ে আহত, এলাকাবাসীর মানববন্ধন

প্রিয় সিলেট ডেস্ক
প্রকাশিত জুন ১৯, ২০২১
কমলগঞ্জে ইউপি সদস্যকে কুপিয়ে আহত, এলাকাবাসীর মানববন্ধন
Spread the love

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জের রহিমপুর ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ড সদস্যকে দুর্বৃত্তরা কুপিয়েছে গুরুতর আহত করা হয়েছে। গুরুতর আহত ইউপি সদস্য সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

শুক্রবার (১৮ জুন) রাত সাড়ে ১০টার আমতৈল বালুঘাট নামক স্থানে ঘটনা ঘটে।

আহত ইউপি সদস্যের চাচাতো ভাই বিলাল মিয়া জানান, রহিমপুর ইউনিয়নের সদস্য বড়চেগ গ্রামের মৃত আব্দুল করিম এর ছেলে মাহমুদ আলী (৫০) চৈত্রঘাট বাজার থেকে শুক্রবার রাত সাড়ে ১০টার তার বাড়ি বড়চেগ গ্রামে মোটরসাইকেল যোগে যাচ্ছিলেন। আমতৈল বালুঘাট এলাকায় পৌঁছালে পূর্ব থেকে উৎ পেতে থাকা দুর্বৃত্তরা কাঠের একটি বেঞ্চ রাস্তার উপর রেখে তার গতিরোধ করে হামলা চালায়। এসময় এলোপাথাড়ি কুপিয়ে মাহমুদ আলীকে আহত করে দূর্বৃত্তরা। তার চিৎকার শুনে স্থানীয়রা এগিয়ে এলে দূর্বৃত্তরা পালিয়ে যায়।

পরে তার স্বজনরা এসে রক্তাক্ত অবস্থায় মাহমুদ আলীকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেন। অবস্থার অবনতি হলে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়।

খবর পেয়ে শনিবার সকালে কমলগঞ্জ থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত থানায় কোন অভিযোগ হয়নি।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে কমলগঞ্জ থানার ওসি ইয়ারদৌস হাসান বলেন, পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

এদিকে রহিমপুর ইউপি সদস্য মাহমুদ আলী ও আওয়ামী লীগ নেতা সুলেমান মিয়ার বড়চেগ এলাকার সন্ত্রাসী করম উদ্দিন ও তার পুত্র হারুনুর রশীদ গংদের ধারাবাহিক জোর, জুলুম, অত্যাচারের প্রতিবাদে শনিবার (১৯ জুন) বিকাল ৪টায় ছয়কুট নতুনবাজার এলাকায় ওয়ার্ডবাসীর উদ্যোগে এক বিরাট মানববন্ধন ও বিক্ষোভ কর্মসূচী পালিত হয়।

আওয়ামী লীগ নেতা সুলেমান মিয়ার সঞ্চালনায় মানববন্ধনে বক্তব্য দেন রহিমপুর ইউপি সদস্য মো. আজির উদ্দিন, ইমাম বশির আহমদ, সাবেক মেম্বার আজমত আলী, মাওলানা আবুল খায়ের, যুবলীগ নেতা ওয়াসিদ আলী, মাসুক মিয়া, প্রবীণ মুরব্বী মাহমুদ আলী প্রমুখ।

প্রতিনিধি :: সিলেটের জৈন্তাপুরে ট্রাকচাপায় নিহত পাঁচজনের মধ্যে চারজন একই পরিবারের। আজ রোববার সকাল সাড়ে ছয়টার দিকে সিলেট-তামাবিল সড়কের জৈন্তাপুর ফেরিঘাট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত পাঁচজন হলেন জৈন্তাপুরের নিজপাট রুপচেন গ্রামের জামাল উদ্দিনের স্ত্রী সাবিয়া বেগম (৪০), সাবিয়ার মেয়ে সাকিয়া বেগম (৪), তিন মাস বয়সী ছেলে তাহমিদ হোসেন, ননদ হাবিবুন নেছা (৩৮) ও একই গ্রামের সিএনজিচালিত অটোরিকশার চালক হোসেন আহমদ (৩৫)। এ ঘটনায় আহত হয়ে সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন নিহত সাবিয়ার দেবর জাকারিয়া আহমদ (৪২) ও তাঁর স্ত্রী হাসিনা বেগম (৩০)। পুলিশ ও নিহত ব্যক্তিদের পরিবারসূত্র জানায়, যাত্রীবাহী একটি সিএনজিচালিত অটোরিকশা সকাল সাড়ে ছয়টার দিকে মহাসড়কে উঠলে সিলেট থেকে তামাবিলগামী একটি ট্রাক সেটিকে ধাক্কা দেয়। এতে সিএনজিচালিত অটোরিকশার কয়েকজন যাত্রী ছিটকে পড়ে ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হন। এ সময় ঘটনাস্থলে চারজন ও হাসপাতালে নেওয়ার পথে একজনের মৃত্যু হয়। আহত জাকারিয়া আহমদ বলেন, আজ সকালে সিএনজিচালিত অটোরিকশায় করে স্বজনের বাড়িতে যাওয়ার পথে এ দুর্ঘটনা ঘটে। জৈন্তাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) গোলাম দস্তগীর বলেন, মরদেহগুলো সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে অটোরিকশাটি থানায় নেওয়া হয়েছে।