• ৯ই ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ২৪শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ , ৫ই জমাদিউল আউয়াল, ১৪৪৩ হিজরি

২য় ধাপে সিলেটের দুই উপজেলার ১১৫ পরিবারকে ঘর দেবে সরকার

প্রিয় সিলেট ডেস্ক
প্রকাশিত জুন ১৯, ২০২১
২য় ধাপে সিলেটের দুই উপজেলার ১১৫ পরিবারকে ঘর দেবে সরকার
Spread the love

আগামীকাল রবিবার (২০ জুন) সিলেটের দুই উপজেলার ভূমিহীন ও গৃহহীন ১১৫টি পরিবারকে সরকারি ঘর দেবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

শনিবার (১৯ জুন) দুপুরে সিলেট জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে জেলা প্রশাসকের সম্মেলনকক্ষে প্রেস ব্রিফিংয়ে এই তথ্য জানানো হয়।

প্রেস ব্রিফিংকালে বলা হয়, রবিবার দেশের অন্যান্য উপজেলার সঙ্গে সিলেটের কানাইঘাট উপজেলার ৭৫টি ও গোয়াইঘাট উপজেলার ৪০টি পরিবারকে সরকারির ঘরের চাবি হস্তান্তর করা হবে। এ উপলক্ষে অনুষ্ঠিত ভার্চুয়াল অনুষ্ঠানে সকাল সাড়ে ১০টায় রাজধানীর গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সে প্রধান অতিথি হিসেবে যুক্ত থাকবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

জানা গেছে, ‘মুজিববর্ষে বাংলাদেশে একজন মানুষও গৃহহীন থাকবে না’ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার এ নির্দেশনা বাস্তবায়নে সিলেটে দ্বিতীয় পর্যায়ে গোয়াইনঘাট ও কানাইঘাট উপজেলার ভূমিহীন ও গৃহহীন ১১৫টি পরিবার ঘর পাচ্ছে।

এসবের এককেটি ঘর হচ্ছে ১ লাখ ৯০ হাজার টাকা ব্যয়ে নির্মিত। ঘরে দুটি কক্ষ, একটি টয়লেট, একটি রান্নাঘর রয়েছে। ৩৯৯ বর্গফুট স্পেসের এসব ঘরে থাকছে বিদ্যুৎ ব্যবস্থা।

রবিবার সিলেটের এই দুই উপজেলার ১১৫টি পরিবারকে গৃহ ও ভূমি প্রদানের লক্ষ্যে ইতোমধ্যে ২ শতক জমির বন্দোবস্ত প্রদান, কবুলিয়াত ও নামজারি সম্পাদন এবং ভূমি হস্তান্তর সনদ তৈরি হয়েছে।

জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে জানানো হয়, এ বছরের ২৩ জানুয়ারি প্রথম পর্যায়ে সিলেট জেলায় ১৪০৬টি ঘর হস্তান্তর করা হয়। এই পর্যায়ের আরো ৭২৪টি ঘর দ্বিতীয় পর্যায়ে হস্তান্তর করা হবে।

প্রেস ব্রিফিং অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ-পরিচালক মো. মামুনুর রশীদ ও অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মো. আসলাম উদ্দিন। এছাড়াও জেলা প্রশাসনের মিডিয়া সেলের দায়িত্বে থাকা সহকারী কমিশনার শামমা লাবিবা অর্ণব উপস্থিত ছিলেন।

সাংবাদিক নেতৃবৃন্দের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সিলেট জেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি আল আজাদ, সহসাধারণ সম্পাদক সৈয়দ রাসেল, সিলেট অনলাইন প্রেসক্লাবের সভাপতি মুহিত চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক মকসুদ আহমদ মকসুদ।

প্রতিনিধি :: সিলেটের জৈন্তাপুরে ট্রাকচাপায় নিহত পাঁচজনের মধ্যে চারজন একই পরিবারের। আজ রোববার সকাল সাড়ে ছয়টার দিকে সিলেট-তামাবিল সড়কের জৈন্তাপুর ফেরিঘাট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত পাঁচজন হলেন জৈন্তাপুরের নিজপাট রুপচেন গ্রামের জামাল উদ্দিনের স্ত্রী সাবিয়া বেগম (৪০), সাবিয়ার মেয়ে সাকিয়া বেগম (৪), তিন মাস বয়সী ছেলে তাহমিদ হোসেন, ননদ হাবিবুন নেছা (৩৮) ও একই গ্রামের সিএনজিচালিত অটোরিকশার চালক হোসেন আহমদ (৩৫)। এ ঘটনায় আহত হয়ে সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন নিহত সাবিয়ার দেবর জাকারিয়া আহমদ (৪২) ও তাঁর স্ত্রী হাসিনা বেগম (৩০)। পুলিশ ও নিহত ব্যক্তিদের পরিবারসূত্র জানায়, যাত্রীবাহী একটি সিএনজিচালিত অটোরিকশা সকাল সাড়ে ছয়টার দিকে মহাসড়কে উঠলে সিলেট থেকে তামাবিলগামী একটি ট্রাক সেটিকে ধাক্কা দেয়। এতে সিএনজিচালিত অটোরিকশার কয়েকজন যাত্রী ছিটকে পড়ে ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হন। এ সময় ঘটনাস্থলে চারজন ও হাসপাতালে নেওয়ার পথে একজনের মৃত্যু হয়। আহত জাকারিয়া আহমদ বলেন, আজ সকালে সিএনজিচালিত অটোরিকশায় করে স্বজনের বাড়িতে যাওয়ার পথে এ দুর্ঘটনা ঘটে। জৈন্তাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) গোলাম দস্তগীর বলেন, মরদেহগুলো সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে অটোরিকশাটি থানায় নেওয়া হয়েছে।