• ২১শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ৬ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ , ১৪ই সফর, ১৪৪৩ হিজরি

মডেলসহ আরও অনেকে নজরদারিতে

প্রিয় সিলেট ডেস্ক
প্রকাশিত আগস্ট ৬, ২০২১
মডেলসহ আরও অনেকে নজরদারিতে

হঠাৎ করেই আলোচনায় শোবিজ জগতের তারকারা। চাকচিক্যময় জগতের আড়ালে একে একে বেরিয়ে আসছে কিছু তারকাদের ভিন্ন রূপ।

যারা রাজধানীর অভিযাত এলাকায় নিয়মিত পার্টির নামে মদের আসর জমাতেন। আর সেসব পার্টির মূল লক্ষ্য ছিল বিত্তবানদের ডেকে নিয়ে ফাঁদে ফেলা।

পার্টিতে অংশ নেওয়াদের চাহিদামতো মডেলদের সরবরাহ করে আদায় করা হতো মোটা অঙ্কের অর্থ। কখনো আপত্তিকর ছবি কিংবা ভিডিও ধারণ করে করা হতো প্রতারণা।

সম্প্রতি আলোচিত মডেল ফারিয়া মাহবুব পিয়াসা ও মৌকে এমন সুনির্দিষ্ট অভিযোগের প্রেক্ষিতে গ্রেফতার করে মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। এরপর এই চক্রের অন্যতম হোতা মিশু হাসান ও জিসানকে গ্রেফতার করে র‌্যাব। তাদের কাছ থেকে প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে সবশেষ গ্রেফতার করা হয় নায়িকা পরীমনি ও প্রযোজক নজরুল ইসলাম রাজকে।

সংশ্লিষ্টরা বলছেন, এখন পর্যন্ত গ্রেফতারদের জিজ্ঞাসাবাদে ১০-১২ জনের একটি সিন্ডকেটের তথ্য পাওয়া গেছে। যারা রাজধানীর অভিযাত এলাকা গুলশান, বনানী, বারিধারা, উত্তরাসহ বিভিন্ন ফ্ল্যাট ও অফিসে নিয়মিত পার্টির আয়োজন করতেন। সেসব পার্টিতে বিত্তবান ও ব্যবসায়ী যুবকদের ডেকে তাদের পছন্দমতো শোবিজ জগতের পরিচিত বা স্বল্প পরিচিত মডেলদের সরবরাহ করা হতো। এর বিনিময়ে আদায় করা হতো মোটা অঙ্কের অর্থ।

কখনো কখনো এসব পার্টিতে আপত্তিকর ছবি বা ভিডিও ধারণ করে সেসব দিয়ে তাদের দীর্ঘদিন ধরে প্রতারণা করা হতো। এভাবে চক্রটি বিপুল পরিমাণ অর্থসহ হাতিয়ে নিয়েছে ফ্ল্যাট বা দামী গাড়ি।

সূত্র জানায়, এই চক্রে মডেলসহ আরও বেশ কয়েকজনের নাম পাওয়া গেছে। যারা বর্তমানে নজরদারিতে রয়েছেন। সুনির্দিষ্ট তথ্য প্রমাণের ভিত্তিতে তাদেরও পর্যায়ক্রমে আইনের আওতায় নিয়ে আসা হবে।

এক প্রশ্নের জবাবে বৃহস্পতিবার (৫ আগস্ট) র‌্যাবের লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইংয়ের পরিচালক কমান্ডার খন্দকার আল মঈন বলেন, নজরুল ইসলাম রাজ, মিশু ও জিসানের চক্রে ১০-১২ জন জড়িত থাকার তথ্য পাওয়া গেছে। যারা বিভিন্ন ফ্ল্যাটে পার্টির নামে অনৈতিক কার্যকলাপে জড়িত। তাদের গোয়েন্দা জালে ফেলে আমরা আটকের চেষ্টা করছি।

এছাড়া, আরও কিছু ফ্ল্যাট বা মিনিবারের তথ্য পাওয়া গেছে, সেসব তথ্য বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই উদ্দেশ্যপ্রণোদিত হতে পারে। তাই তথ্য যাচাই-বাছাই সাপেক্ষে সেই সব বাসাতেও অভিযান পরিচালনার কথা জানান তিনি।

এই চক্রের হাতে ভিকটিমের বিষয়ে জানতে চাইলে কমান্ডার খন্দকার আল মঈন বলেন, আমরা কিছু তথ্য পেয়েছি, তবে সেসব তথ্য উদ্দেশ্যপ্রণোদিত বা কারো স্বার্থ জড়িত কি-না যাচাই-বাছাই করা হচ্ছে। যাচাই-বাছাই সাপেক্ষে সেসব বিষয়ে নিশ্চিত হয়ে বলা যাবে।

সূত্র জানায়, এক সময় বিভিন্ন অভিযাত ক্লাব ও পাঁচ তারকা হোটেলগুলোতে পার্টির আয়োজন করতো এই চক্র। কিন্তু করোনার কারণে বিভিন্ন পাঁচ তারকা হোটেল বন্ধ হয়ে যাওয়ায় তারা বিভিন্ন অভিযাত এলাকার ফ্ল্যাটে পার্টি করার সিদ্ধান্ত নেয়। এরই অংশ হিসেবে পিয়াসা, মৌ ও পরীমনির ফ্ল্যাটেও নিয়মিত পার্টি হতো। প্রতিটি পার্টিতে ১৫ থেকে ২০ জন অংশগ্রহণ করতেন। এছাড়া সিন্ডিকেটটি বিদেশেও ‘প্লেজার ট্রিপের’ আয়োজন করতো। যার মাধ্যমে মোটা অঙ্কের টাকা হাতিয়ে নেওয়া হতো।

এদিকে, চলচ্চিত্র প্রযোজক রাজ উঠতি বয়সী তরুণীদের শোবিজ জগতে নিয়ে আসার নামে ফাঁদে ফেলতেন। সিনেমা ও মডেলিংয়ে কাজের সুযোগের কথা বলে ফাঁদে ফেলে এমন অনৈতিক কাজে যুক্ত করেছেন অনেক তরুণীকে।

বুধবার (০৪ আগস্ট) বিকেলে সুনির্দিষ্ট কিছু অভিযোগের ভিত্তিতে পরীমনির বাসায় অভিযান চালানো হয়। অভিযানে বিপুল পরিমাণ বিদেশি মদসহ অন্যান্য মাদক উদ্ধার করা হয়। এরপর প্রযোজক নজরুল ইসলাম রাজের বাসা থেকেও মাদক ও সিসার সরঞ্জাম জব্দ করা হয়।

বৃহস্পতিবার তাদের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মাদক মামলায় চারদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। বর্তমানে রাজ ও পরীমনি ডিবি হেফাজতে রিমান্ডে রয়েছেন।

  •  
  •  
  •  
  •  

প্রতিনিধি :: সিলেটের জৈন্তাপুরে ট্রাকচাপায় নিহত পাঁচজনের মধ্যে চারজন একই পরিবারের। আজ রোববার সকাল সাড়ে ছয়টার দিকে সিলেট-তামাবিল সড়কের জৈন্তাপুর ফেরিঘাট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত পাঁচজন হলেন জৈন্তাপুরের নিজপাট রুপচেন গ্রামের জামাল উদ্দিনের স্ত্রী সাবিয়া বেগম (৪০), সাবিয়ার মেয়ে সাকিয়া বেগম (৪), তিন মাস বয়সী ছেলে তাহমিদ হোসেন, ননদ হাবিবুন নেছা (৩৮) ও একই গ্রামের সিএনজিচালিত অটোরিকশার চালক হোসেন আহমদ (৩৫)। এ ঘটনায় আহত হয়ে সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন নিহত সাবিয়ার দেবর জাকারিয়া আহমদ (৪২) ও তাঁর স্ত্রী হাসিনা বেগম (৩০)। পুলিশ ও নিহত ব্যক্তিদের পরিবারসূত্র জানায়, যাত্রীবাহী একটি সিএনজিচালিত অটোরিকশা সকাল সাড়ে ছয়টার দিকে মহাসড়কে উঠলে সিলেট থেকে তামাবিলগামী একটি ট্রাক সেটিকে ধাক্কা দেয়। এতে সিএনজিচালিত অটোরিকশার কয়েকজন যাত্রী ছিটকে পড়ে ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হন। এ সময় ঘটনাস্থলে চারজন ও হাসপাতালে নেওয়ার পথে একজনের মৃত্যু হয়। আহত জাকারিয়া আহমদ বলেন, আজ সকালে সিএনজিচালিত অটোরিকশায় করে স্বজনের বাড়িতে যাওয়ার পথে এ দুর্ঘটনা ঘটে। জৈন্তাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) গোলাম দস্তগীর বলেন, মরদেহগুলো সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে অটোরিকশাটি থানায় নেওয়া হয়েছে।