• ২৩শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ৮ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ , ১৬ই সফর, ১৪৪৩ হিজরি

সিলেটে ইয়াবাসহ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার

প্রিয় সিলেট ডেস্ক
প্রকাশিত আগস্ট ৭, ২০২১
সিলেটে ইয়াবাসহ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার

সিলেটের শাহপরাণ এলাকা থেকে দেড় হাজারের অধিক পিস ইয়াবা ট্যাবলেটসহ চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী ও কথিত সাংবাদিক আবুল কালাম (৩৮) এবং তার সহযোগী মিঠুন কুমার দাসকে (২০) গ্রেফতার করেছে র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)-৯।

শুক্রবার (৬ আগস্ট) রাতে শাহপরাণ থানাধীন সাদিপুর-২ এর নয়াগাঁও এলাকা থেকে তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারকৃত আবুল কালাম সিলেটের জকিগঞ্জ থানার শাহিদাবাদ গ্রামের মৃত আব্দুস সোবহানের ছেলে ও মিঠুন কুমার দাস একই থানার আমুরশীদ গ্রামের তপন কুমার দাসের ছেলে।

গ্রেফতার হওয়া আবুল কালামের ফেসবুক আইডি ঘুরে দেখা যায়, তিনি জাতীয় স্বেচ্ছাসেবক পার্টির সিলেট জেলা শাখার সভাপতি ও দৈনিক স্বদেশ প্রতিদিন নামক পত্রিকার সিলেট প্রতিনিধি। তবে কালামকে সিলেটের মূলধারার কোনো সাংবাদিক চিনেন না জানা গেছে।

র‌্যাব জানায়, শুক্রবার রাত সোয়া ৭ টার দিকে র‌্যাব-৯ এর সদর কোম্পানি (সদর ক্যাম্প, সিলেট)-এর একটি দল শাহপরাণ থানাধীন সাদিপুর-২ এলাকার বোরহান উদ্দিন মাজার রোডের Mother’s Shadow ভিলার ২য় তলার দক্ষিণ পাশের ফ্ল্যাটে অভিযান চালিয়ে চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী আবুল কালাম ও মিঠুন কুমার দাসেকে গ্রেফতার করে। এ সময় তাদের কাছ থেকে ১ হাজার ৫ শ ৪৪ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট জব্দ করে র‌্যাব।

জানা যায়, আবুল কালাম দীর্ঘদিন যাবত সিলেটে মাদক ব্যবসা করে আসছে। তিনি বিভিন্ন ইলেকট্রনিক্স ডিভাইসের ভেতরে লুকিয়ে মাদকদ্রব্য এক স্থান থেকে অন্য স্থানে পাঠান। কালামের এমন গোপন কৌশলের ফাঁদে পা দিয়ে অনেক নিরীহ লোক আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর হাতে গ্রেফতার হয়ে এখন কারাগারে।

নির্বিঘ্নে মাদক ব্যবসা চালাতে কালাম নিজেকে কখনো সাংবাদিক ও কখনো আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যসহ বিভিন্ন সময় বিভিন্ন পরিচয় দিয়ে থাকেন।

তবে শেষ রক্ষা হয়নি, ইয়াবাসহ গ্রেফতার হতে হয়েছে র‌্যাবের হাতে।

  •  
  •  
  •  
  •  

প্রতিনিধি :: সিলেটের জৈন্তাপুরে ট্রাকচাপায় নিহত পাঁচজনের মধ্যে চারজন একই পরিবারের। আজ রোববার সকাল সাড়ে ছয়টার দিকে সিলেট-তামাবিল সড়কের জৈন্তাপুর ফেরিঘাট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত পাঁচজন হলেন জৈন্তাপুরের নিজপাট রুপচেন গ্রামের জামাল উদ্দিনের স্ত্রী সাবিয়া বেগম (৪০), সাবিয়ার মেয়ে সাকিয়া বেগম (৪), তিন মাস বয়সী ছেলে তাহমিদ হোসেন, ননদ হাবিবুন নেছা (৩৮) ও একই গ্রামের সিএনজিচালিত অটোরিকশার চালক হোসেন আহমদ (৩৫)। এ ঘটনায় আহত হয়ে সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন নিহত সাবিয়ার দেবর জাকারিয়া আহমদ (৪২) ও তাঁর স্ত্রী হাসিনা বেগম (৩০)। পুলিশ ও নিহত ব্যক্তিদের পরিবারসূত্র জানায়, যাত্রীবাহী একটি সিএনজিচালিত অটোরিকশা সকাল সাড়ে ছয়টার দিকে মহাসড়কে উঠলে সিলেট থেকে তামাবিলগামী একটি ট্রাক সেটিকে ধাক্কা দেয়। এতে সিএনজিচালিত অটোরিকশার কয়েকজন যাত্রী ছিটকে পড়ে ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হন। এ সময় ঘটনাস্থলে চারজন ও হাসপাতালে নেওয়ার পথে একজনের মৃত্যু হয়। আহত জাকারিয়া আহমদ বলেন, আজ সকালে সিএনজিচালিত অটোরিকশায় করে স্বজনের বাড়িতে যাওয়ার পথে এ দুর্ঘটনা ঘটে। জৈন্তাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) গোলাম দস্তগীর বলেন, মরদেহগুলো সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে অটোরিকশাটি থানায় নেওয়া হয়েছে।