• ২৬শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ১১ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ , ১৯শে সফর, ১৪৪৩ হিজরি

আফগানিস্তানে একমাসে সহস্রাধিক নিহত, তিনদিনে প্রাণ গেছে ২৭ শিশুর

প্রিয় সিলেট ডেস্ক
প্রকাশিত আগস্ট ১০, ২০২১
আফগানিস্তানে একমাসে সহস্রাধিক নিহত, তিনদিনে প্রাণ গেছে ২৭ শিশুর

আফগানিস্তানে সরকারি বাহিনীর সঙ্গে তালেবানের তীব্র লড়াইয়ে গত এক মাসে এক হাজারের বেশি বেসামরিক মানুষ নিহত হয়েছেন। এদের মধ্যে বিপুল সংখ্যক নারী ও শিশু রয়েছে। কেবল গত তিন দিনে কমপক্ষে ২৭টি শিশু নিহত হয়েছে।

সোমবার প্রকাশিত জাতিসংঘের শিশু বিষয়ক তহবিল ইউনিসেফের এক বিবৃতির বরাত দিয়ে বিবিসি এ খবর জানায়।

তালেবান গত শুক্রবার থেকে এ পর্যন্ত আফগানিস্তানের ছয়টি প্রাদেশিক রাজধানী শহর দখলে নিয়েছে। তারা যুদ্ধবিরতীর একটি আন্তর্জাতিক প্রস্তাবও প্রত্যাখ্যান করেছে।

চলতি মাসের শেষে আফগানিস্তান থেকে সব মার্কিন সেনা প্রত্যাহার করে নেয়া হচ্ছে। এ প্রেক্ষাপটে দেশটিকে তালেবানরা নতুন নতুন এলাকা দখলে নিতে অগ্রসর হচ্ছে।

এতে বিভিন্ন স্থানে আফগান সরকারি বাহিনীর সঙ্গে তাদের তুমুল লড়াই হচ্ছে। বিবিসির খবরে বলা হয়, এ লড়াই চলাকালে গত এক মাসে আফগানিস্তানে সহিংসতায় ১ হাজারের বেশি বেসামরিক মানুষ নিহত হয়েছেন।

এক বিবৃতিতে ইউনিসেফ জানায়, দিনকে দিন শিশুদের ওপর নির্মমতা বেড়েই চলেছে। আফগানিস্তানের তিন প্রদেশ – কান্দাহার, খোস্ত ও পাকতিয়ায় এ ২৭ শিশুর প্রাণহানী হয়েছে। এসব এলাকায় তিনদিনে প্রায় ১৩৬টি শিশু আহতও হয়েছে।

ইউনিসেফ আফগানিস্তানের সামান্থা মর্ট বলেন, ‘শিশুদের জন্য আফগানিস্তান বিশে^র সবচেয়ে খারাপ স্থানগুলোর একটি। কিন্তু সাম্প্রতিক সময়ে, বিশেষ করে গত ৭২ ঘণ্টায় এ পরিস্থিতি অধিকতর খারাপ হয়েছে।’

শিশুরা সড়কের পাশে পুতে রাখা বোমা এবং বন্দুকযুদ্ধ চলাকালে হতাহত হচ্ছে। এক আফগান মা জানান, তারা ঘুমিয়ে ছিলেন। এ সময় বোমা আঘাত হানে তাদের ঘরে। এতে আগুন লেগে গেলে তার শিশু পুত্র পুড়ে মারা যায়।

ইউনিসেফ আফগানিস্তানে উভয়পক্ষকে শিশুদের নিরাপত্তার বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে নিতে আহ্বান জানিয়েছে।

  •  
  •  
  •  
  •  

প্রতিনিধি :: সিলেটের জৈন্তাপুরে ট্রাকচাপায় নিহত পাঁচজনের মধ্যে চারজন একই পরিবারের। আজ রোববার সকাল সাড়ে ছয়টার দিকে সিলেট-তামাবিল সড়কের জৈন্তাপুর ফেরিঘাট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত পাঁচজন হলেন জৈন্তাপুরের নিজপাট রুপচেন গ্রামের জামাল উদ্দিনের স্ত্রী সাবিয়া বেগম (৪০), সাবিয়ার মেয়ে সাকিয়া বেগম (৪), তিন মাস বয়সী ছেলে তাহমিদ হোসেন, ননদ হাবিবুন নেছা (৩৮) ও একই গ্রামের সিএনজিচালিত অটোরিকশার চালক হোসেন আহমদ (৩৫)। এ ঘটনায় আহত হয়ে সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন নিহত সাবিয়ার দেবর জাকারিয়া আহমদ (৪২) ও তাঁর স্ত্রী হাসিনা বেগম (৩০)। পুলিশ ও নিহত ব্যক্তিদের পরিবারসূত্র জানায়, যাত্রীবাহী একটি সিএনজিচালিত অটোরিকশা সকাল সাড়ে ছয়টার দিকে মহাসড়কে উঠলে সিলেট থেকে তামাবিলগামী একটি ট্রাক সেটিকে ধাক্কা দেয়। এতে সিএনজিচালিত অটোরিকশার কয়েকজন যাত্রী ছিটকে পড়ে ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হন। এ সময় ঘটনাস্থলে চারজন ও হাসপাতালে নেওয়ার পথে একজনের মৃত্যু হয়। আহত জাকারিয়া আহমদ বলেন, আজ সকালে সিএনজিচালিত অটোরিকশায় করে স্বজনের বাড়িতে যাওয়ার পথে এ দুর্ঘটনা ঘটে। জৈন্তাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) গোলাম দস্তগীর বলেন, মরদেহগুলো সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে অটোরিকশাটি থানায় নেওয়া হয়েছে।