• ৫ই ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ , ২০শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ , ১১ই জমাদিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি

বিশ্বনাথে স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণের মামলায় কিশোর গ্রেফতার

প্রিয় সিলেট ডেস্ক
প্রকাশিত আগস্ট ২৬, ২০২১
বিশ্বনাথে স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণের মামলায় কিশোর গ্রেফতার
Spread the love

চতুর্থ শ্রেণীর ছাত্রীকে ধর্ষণের মামলার অভিযুক্ত ইমন মিয়া (১৫)’কে গ্রেফতার করেছে সিলেটের বিশ্বনাথ থানা পুলিশ। ইমন নেত্রকোনার কেন্দুয়া উপজেলার বাড়ই গ্রামের আতিক মিয়ার পুত্র ও বিশ্বনাথ সদর ইউনিয়নের পূর্ব শ্বাসরাম গ্রামের অস্থায়ী বাসিন্দা। বুধবার দিবাগত রাতেই পূর্ব শ্বাসরাম এলাকা থেকে ধর্ষক ইমনকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

এ ব্যাপারে স্কুল ছাত্রীর পিতা বাদী হয়ে বিশ্বনাথ থানায় ইমনের বিরুদ্ধে ‘নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে’ মামলা দায়ের করেছেন। মামলা নং- ১৫ (তাং- ২৫.০৮.২১ইং)।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার সদর ইউনিয়নের পশ্চিম শ্বাসরাম গ্রামের ৪র্থ শ্রেণীর ওই ছাত্রী বুধবার (২৫ আগস্ট) বিকেলে খেলার উদ্দেশ্যে পার্ববর্তী পূর্ব শ্বাসরাম তার সহপাঠির বাড়িতে যায়। খোশগল্পের এক পর্যায়ে বান্ধবী পুকুর ঘাটে গেলে, সে তার মায়ের সাথে কথা বলছিল। তখন পাশাপাশি বাড়িতে বসবাসকারী বখাটে কিশোর ইমন তাকে ডেকে গ্রামের সেলিম মিয়ার রান্নাঘরে নিয়ে গিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। এরপর ইমন সেখান থেকে পালিয়ে যায়। দীর্ঘ সময় ঘটনাস্থলে অচেতন অবস্থায় পড়ে থাকে ওই ধর্ষণেল শিকার হওয়া স্কুল ছাত্রী। দীর্ঘ সময় বাড়িতে তার অনুপস্থিতি দেখে, অনেক খোঁজাখুজি করার এক পর্যায়ে সেলিম মিয়ার রান্না ঘর থেকে তাকে অচেতন অবস্থায় উদ্ধার করেন ভিকটিমের দাদী। খবর পেয়ে রাতেই অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত কিশোর ইমনকে গ্রেফতার করে থানা পুলিশ।

ধর্ষণের ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের ও ধর্ষক ইমনকে গ্রেফতারের সত্যতা স্বীকার করে বিশ্বনাথ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) গাজী আতাউর রহমান বলেন, তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।