• ২১শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ৬ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ , ১৪ই সফর, ১৪৪৩ হিজরি

সিলেটে স্বেচ্ছাসেবক দল থেকে আরো পদত্যাগ করলেন যারা

প্রিয় সিলেট ডেস্ক
প্রকাশিত আগস্ট ২৭, ২০২১
সিলেটে স্বেচ্ছাসেবক দল থেকে আরো পদত্যাগ করলেন যারা

সিলেট জেলা ও মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দলের আহবায়ক কমিটি নিয়ে ক্ষোভের জের ধরে পদত্যাগ অব্যাহত রয়েছে। শুক্রবার বিকেলে প্রেস ব্রিফিং করে মহানগরীর বিভিন্ন ওয়ার্ডের ১৪ জন নেতা পদত্যাগ করেছেন।

এর আগে জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সাবেক আহ্বায়ক ও বিএনপির কেন্দ্রীয় সহ স্বেচ্ছাসেবক বিষয়ক সম্পাদক এডভোকেট শামসুজ্জামান জামান পদত্যাগ করেন। পাশাপাশি তিনি বিএনপির রাজনীতি থেকেও সরে দাঁড়ান। এরপর থেকে তার অনুসারীরা পদত্যাগ করে চলছেন।

শুক্রবার প্রেসব্রিফিংয়ে পদত্যাগপত্র পড়ে শোনান ২০নং ওয়ার্ড স্বেচ্ছাসেবক দলের আহ্বায়ক রায়হান বক্স রাক্কু। পদত্যাগপত্রে উল্লেখ করা হয়, জেলা ও মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দলের সদ্য ঘোষিত আহ্বায়ক কমিটিতে ত্যাগীদের মূল্যায়ন করা হয়নি। জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সাবেক আহ্বায়ক এডভোকেট সামসুজ্জামান জামান সিলেটে স্বেচ্ছাসেবক দলকে সুসংগঠিত করলেও কমিটি গঠনের আগে তার মতামত নেয়া হয়নি। তাকে অবজ্ঞা করে কমিটি ঘোষণা করায় দলের তৃণমূল পর্যায়ের নেতাকর্মীরাও ক্ষুব্ধ। তাই সম্মানের সাথে রাজনীতি করার সুযোগ না থাকায় তারা দল থেকে পদত্যাগ করছেন।

পদত্যাগকারী স্বেচ্ছাসেবক দলের নেতাদের মধ্যে রয়েছেন- ২১নং ওয়ার্ডের আহবায়ক কাউন্সিলর আব্দুর রকিব তুহিন, ৬নং ওয়ার্ডের আহবায়ক আব্দুল হান্নান, ১৯নং ওয়ার্ডের আহ্বায়ক মাসুক গাজী, ১৭নং ওয়ার্ডের আহবায়ক বিলাল আহমদ খান, ১০নং ওয়ার্ডের আহ্বায়ক মিজানুর রহমান, ১১নং ওয়ার্ডের সেলিম আহমদ, ১০নং ওয়ার্ডের সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক শামীম আহমদ খান, ২০নং ওয়ার্ডের সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক আকবর হোসেন কয়ছর, ৩নং ওয়ার্ডের সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক মামুন আহমদ, ২৩নং ওয়ার্ডের সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক দেলোয়ার হোসেন, ২০নং ওয়ার্ডের ফারুক হোসেন, ২১নং ওয়ার্ডের সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক মস্তফা কামাল ফরহাদ ও শাহজাহান আহমদ প্রমুখ।

এর আগে কমিটির জের ধরে বিভিন্ন উপজেলা ও পৌর শাখার শতাধিক নেতাকর্মী এবং সদ্যঘোষিত জেলা ও মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দলের আহ্বায়ক কমিটির ১০ জন পদত্যাগ করেন।

  •  
  •  
  •  
  •  

প্রতিনিধি :: সিলেটের জৈন্তাপুরে ট্রাকচাপায় নিহত পাঁচজনের মধ্যে চারজন একই পরিবারের। আজ রোববার সকাল সাড়ে ছয়টার দিকে সিলেট-তামাবিল সড়কের জৈন্তাপুর ফেরিঘাট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত পাঁচজন হলেন জৈন্তাপুরের নিজপাট রুপচেন গ্রামের জামাল উদ্দিনের স্ত্রী সাবিয়া বেগম (৪০), সাবিয়ার মেয়ে সাকিয়া বেগম (৪), তিন মাস বয়সী ছেলে তাহমিদ হোসেন, ননদ হাবিবুন নেছা (৩৮) ও একই গ্রামের সিএনজিচালিত অটোরিকশার চালক হোসেন আহমদ (৩৫)। এ ঘটনায় আহত হয়ে সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন নিহত সাবিয়ার দেবর জাকারিয়া আহমদ (৪২) ও তাঁর স্ত্রী হাসিনা বেগম (৩০)। পুলিশ ও নিহত ব্যক্তিদের পরিবারসূত্র জানায়, যাত্রীবাহী একটি সিএনজিচালিত অটোরিকশা সকাল সাড়ে ছয়টার দিকে মহাসড়কে উঠলে সিলেট থেকে তামাবিলগামী একটি ট্রাক সেটিকে ধাক্কা দেয়। এতে সিএনজিচালিত অটোরিকশার কয়েকজন যাত্রী ছিটকে পড়ে ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হন। এ সময় ঘটনাস্থলে চারজন ও হাসপাতালে নেওয়ার পথে একজনের মৃত্যু হয়। আহত জাকারিয়া আহমদ বলেন, আজ সকালে সিএনজিচালিত অটোরিকশায় করে স্বজনের বাড়িতে যাওয়ার পথে এ দুর্ঘটনা ঘটে। জৈন্তাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) গোলাম দস্তগীর বলেন, মরদেহগুলো সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে অটোরিকশাটি থানায় নেওয়া হয়েছে।