• ২৬শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ১১ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ , ১৯শে সফর, ১৪৪৩ হিজরি

‘সিলেট-৩ উপনির্বাচন সরকারের জন্য অগ্নিপরীক্ষা’

প্রিয় সিলেট ডেস্ক
প্রকাশিত আগস্ট ৩১, ২০২১
‘সিলেট-৩ উপনির্বাচন সরকারের জন্য অগ্নিপরীক্ষা’

জাতীয় পার্টির (জাপা) মহাসচিব, সাবেক মন্ত্রী জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু বলেছেন, সারা দেশের মানুষ সিলেট-৩ আসনের উপনির্বাচনের দিকে চেয়ে আছে। এটা সরকারের একটি অগ্নিপরীক্ষা। এই পরীক্ষায় সরকারকে অবশ্যই উত্তীর্ণ হতে হবে। তা না হলে দেশ চরম সংকটের মধ্যে পড়বে। সেই সংকট কাটিয়ে উঠা সরকারের পক্ষে সম্ভব হবে না।

মঙ্গলবার বিকেলে সিলেট-৩ আসনের উপনির্বাচন নিয়ে নগরীর মিরাবাজারস্থ একটি হোটেলে জেলা জাতীয় পার্টি আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

জাপা মহাসচিব বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান যে গণতান্ত্রিক দেশের স্বপ্ন দেখে স্বাধীনতার ঘোষণা দিয়েছিলেন। ৭১’র যুদ্ধে আমাদের ৩০ লাখ মুক্তিযোদ্ধা শহীদ হয়েছিলেন, ৩ লাখ মা-বোন সভ্রম দিয়েছিলেন- তাদের স্বপ্ন অর্থবহ করতে জনগণের ভোটাধিকার নিশ্চিত করা প্রয়োজন। বর্তমানে দেশে শুধু সরকারি দল নির্বাচন করছে, আর কোনো দল নির্বাচনে আসছে না। জাতীয় পার্টি নির্বাচনে আসার কারণ হচ্ছে সরকার যাতে বারবার একই ভুল না করে। তারপরও সরকার ভুল করে যাচ্ছে।

তিনি বলেন, সরকার ভোট কারচুপি করতে করতে সাধারণ মানুষের কাছে ভোটের গ্রহণযোগ্যতা হারিয়েছে। মানুষ আর ভোট দিতে আসে না। সিলেট-৩ আসনের নির্বাচনের মাধ্যমে মানুষ যাতে ভোট দিতে উদ্বুদ্ধ হয় দেশব্যাপী তার একটা উদাহরণ তৈরি হোক।

জাপা মহাসচিব বলেন, করোনা পরিস্থিতির মধ্যে অনুষ্ঠিত দুটি নির্বাচনে মাত্র ৩ ও ১০ শতাংশ ভোট পড়েছে। এটা একটি দেশের গণতন্ত্রের জন্য হুমকি। নির্বাচন সুষ্ঠু না হলে গণতন্ত্র প্রশ্নবিদ্ধ হয়। আমাদের দেশে গণতন্ত্র খুব মুমূর্ষু অবস্থায়। সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষভাবে সিলেট-৩ আসনের নির্বাচন দিয়ে মুমূর্ষু গণতন্ত্রকে সতেজ করতে হবে। তা না হলে দেশে আর গণতন্ত্র থাকবে না।

জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু আরও বলেন, সিলেটের এই নির্বাচনটা অংশগ্রহণমূলক হোক এটাই আমাদের প্রত্যাশা। ব্যালটের মাধ্যমে যে ফলাফল হোক আমরা মাথা পেতে মেনে নেব। কিন্তু মানুষ যাতে ভোট কেন্দ্রে যেতে পারে সে নিশ্চয়তা সরকারকে নিশ্চিত করতে হবে। ভোট মানুষের সাংবিধানিক অধিকার এটা নিশ্চিত করার দায়িত্ব সরকারের।

সংবাদ সম্মেলনে একপ্রশ্নের জবাবে এই জাপা নেতা বলেন, সিলেটে একটি অবাধ নিরপেক্ষ ও সুষ্ঠু নির্বাচন দেওয়ার জন্য আমরা নির্বাচন কমিশনকে অনুরোধ করেছি। সিইসি আমাদের আশ্বস্ত করেছেন ভোট সুষ্ঠু হবে। একই সঙ্গে আমরা সিলেটের রিটার্নিং কর্মকর্তার সঙ্গে দেখা করে তাকেও একই অনুরোধ করেছি। তিনিও আমাদের আশ্বস্ত করেছেন। তারপরও আমরা শঙ্কিত। কারণ মাঠের অবস্থা কী সেটা নতুন করে বলার নেই।

সিলেট-৩ আসনের ভোটারদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, ভোট মানুষের একটা আমানত। আপনারা ৪ সেপ্টেম্বর লাইন ধরে ভোট প্রদান করুন। আপনাদের সিদ্ধান্তের উপরই আগামীর নেতৃত্ব। গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারে আপনাদের আমানতের খেয়ানত হতে দিবেন না।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন- জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য ও অতিরিক্ত মহাসচিব সংসদ সদস্য ব্যারিস্টার শামীম হায়দার পাটোয়ারী, সংসদ সদস্য লেফটেন্যান্ট জেনারেল (অব.) মাসুদ উদ্দীন চৌধুরী, প্রেসিডিয়াম সদস্য মেজর (অব.) রানা মো. সোহেল, লিয়াকত হোসেন খোকা, ভাইস চেয়ারম্যান ও সংসদ সদস্য আহসান আদেলুর রহমান, প্রেসিডিয়াম সদস্য ও সিলেট-৩ আসনের জাপার দলীয় প্রার্থী আতিকুর রহমান আতিক, মীর আব্দুস সবুর আসুদ, এটিইউ তাজ রহমান, অ্যাডভোকেট মোহাম্মদ রেজাউল ইসলাম ভুঁইয়া, ভাইস চেয়ারম্যান সাবেক সংসদ সদস্য এইচ এম শাহরিয়ার আসিফ, যুগ্ম মহাসচিব ও জাতীয় স্বেচ্ছাসেবক পার্টির সাধারণ সম্পাদক মো. বেলাল হোসেন, জাপা নেতা, সিলেট-২ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য ইয়াহইয়া চৌধুরী এহিয়া এবং ক্রীড়া সম্পাদক ও জাতীয় যুবসংহতির সদস্য সচিব আহাদ ইউ চৌধুরী শাহীনসহ দলের বিভিন্ন স্তরের নেতাকর্মী।

  •  
  •  
  •  
  •  

প্রতিনিধি :: সিলেটের জৈন্তাপুরে ট্রাকচাপায় নিহত পাঁচজনের মধ্যে চারজন একই পরিবারের। আজ রোববার সকাল সাড়ে ছয়টার দিকে সিলেট-তামাবিল সড়কের জৈন্তাপুর ফেরিঘাট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত পাঁচজন হলেন জৈন্তাপুরের নিজপাট রুপচেন গ্রামের জামাল উদ্দিনের স্ত্রী সাবিয়া বেগম (৪০), সাবিয়ার মেয়ে সাকিয়া বেগম (৪), তিন মাস বয়সী ছেলে তাহমিদ হোসেন, ননদ হাবিবুন নেছা (৩৮) ও একই গ্রামের সিএনজিচালিত অটোরিকশার চালক হোসেন আহমদ (৩৫)। এ ঘটনায় আহত হয়ে সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন নিহত সাবিয়ার দেবর জাকারিয়া আহমদ (৪২) ও তাঁর স্ত্রী হাসিনা বেগম (৩০)। পুলিশ ও নিহত ব্যক্তিদের পরিবারসূত্র জানায়, যাত্রীবাহী একটি সিএনজিচালিত অটোরিকশা সকাল সাড়ে ছয়টার দিকে মহাসড়কে উঠলে সিলেট থেকে তামাবিলগামী একটি ট্রাক সেটিকে ধাক্কা দেয়। এতে সিএনজিচালিত অটোরিকশার কয়েকজন যাত্রী ছিটকে পড়ে ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হন। এ সময় ঘটনাস্থলে চারজন ও হাসপাতালে নেওয়ার পথে একজনের মৃত্যু হয়। আহত জাকারিয়া আহমদ বলেন, আজ সকালে সিএনজিচালিত অটোরিকশায় করে স্বজনের বাড়িতে যাওয়ার পথে এ দুর্ঘটনা ঘটে। জৈন্তাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) গোলাম দস্তগীর বলেন, মরদেহগুলো সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে অটোরিকশাটি থানায় নেওয়া হয়েছে।