• ১০ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ , ২৬শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ , ১২ই মহর্‌রম, ১৪৪৪ হিজরি

সিলেটে আরও ৮ জনের মৃত্যু, নতুন সনাক্ত ১১১

প্রিয় সিলেট ডেস্ক
প্রকাশিত সেপ্টেম্বর ৩, ২০২১
সিলেটে আরও ৮ জনের মৃত্যু, নতুন সনাক্ত ১১১
Spread the love

সিলেটে ২৪ ঘণ্টায় ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়ে আরও ৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ সময়ে নতুন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছেন আরও ১১১ জন। নতুন ৮ জনহসহ বিভাগে মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১ হাজার ৯০। আর এ পর্যন্ত আক্রান্তের সংখ্যা ৫৩ হাজার ২০৩ জন।

শুক্রবার (৩ সেপ্টেম্বর) দুপুরে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সিলেট বিভাগীয় পরিচালক (স্বাস্থ্য) কার্যালয় সূত্র জানায়, সিলেট বিভাগে গত ২৪ ঘণ্টায় ৯৭৩ টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এর মধ্যে ১১১ জনের শরীরে ধরা পড়ে করোনা ভাইরাস। এই ১১১ জনের মধ্যে ৬০ জন সিলেট জেলার বাসিন্দা। বাকিদের মধ্যে সুনামগঞ্জের ১১ জন, হবিগঞ্জের ১৪ জন এবং মৌলভীবাজার জেলার ২৬ জন।

বিভাগে করোনাভাইরাস শনাক্তের সংখ্যা ৫৩ হাজার ২০৩ জনের মধ্যে সিলেট জেলায় ৩২ হাজার ৭৮৫ জন, সুনামগঞ্জে ৬ হাজার ১২৪ জন, হবিগঞ্জে ৬ হাজার ৪৯১ জন ও মৌলভীবাজারে ৭ হাজার ৮০৩ জন রয়েছেন।

গত ২৪ ঘণ্টায় সিলেটে ৩৮২ জন রোগী সুস্থ হয়ে উঠেছেন। সুস্থদের মধ্যে ১১৮ জনই সিলেট জেলার বাসিন্দা। বাকিদের মধ্যে সুনামগঞ্জের ২৩৪ জন, হবিগঞ্জের ২ জন ও মৌলভীবাজার জেলার ২৮ জন রয়েছেন।

এদিকে, গত ২৪ ঘণ্টায় বিভাগে মারা যাওয়া ৮ জনের মধ্যে ৭ জন সিলেট জেলার ও একজন হবিগঞ্জ জেলার বাসিন্দা।

এনিয়ে বিভাগে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেলেন ১ হাজার ৯০ জন। এর মধ্যে সিলেট জেলায় সর্বোচ্চ ৮৯৯ জন, সুনামগঞ্জে ৭২ জন, হবিগঞ্জে ৪৭ জন এবং মৌলভীবাজার জেলায় ৭২ জন মারা গেছেন।

অপরদিকে, গত ২৪ ঘণ্টায় সিলেট বিভাগে করোনা আক্রান্ত হয়ে ১৮ জন বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন।

এ নিয়ে আজ বিভাগের বিভিন্ন হাসপাতালে ২৩৮ জন রোগী চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এর মধ্যে সিলেট জেলার বিভিন্ন হাসপাতালে ১৯০ জন, সুনামগঞ্জের হাসপাতালে ২৬ জন, হবিগঞ্জের হাসপাতালে ১৪ জন ও মৌলভীবাজারের হাসপাতালে ৮ জন।

প্রতিনিধি :: সিলেটের জৈন্তাপুরে ট্রাকচাপায় নিহত পাঁচজনের মধ্যে চারজন একই পরিবারের। আজ রোববার সকাল সাড়ে ছয়টার দিকে সিলেট-তামাবিল সড়কের জৈন্তাপুর ফেরিঘাট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত পাঁচজন হলেন জৈন্তাপুরের নিজপাট রুপচেন গ্রামের জামাল উদ্দিনের স্ত্রী সাবিয়া বেগম (৪০), সাবিয়ার মেয়ে সাকিয়া বেগম (৪), তিন মাস বয়সী ছেলে তাহমিদ হোসেন, ননদ হাবিবুন নেছা (৩৮) ও একই গ্রামের সিএনজিচালিত অটোরিকশার চালক হোসেন আহমদ (৩৫)। এ ঘটনায় আহত হয়ে সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন নিহত সাবিয়ার দেবর জাকারিয়া আহমদ (৪২) ও তাঁর স্ত্রী হাসিনা বেগম (৩০)। পুলিশ ও নিহত ব্যক্তিদের পরিবারসূত্র জানায়, যাত্রীবাহী একটি সিএনজিচালিত অটোরিকশা সকাল সাড়ে ছয়টার দিকে মহাসড়কে উঠলে সিলেট থেকে তামাবিলগামী একটি ট্রাক সেটিকে ধাক্কা দেয়। এতে সিএনজিচালিত অটোরিকশার কয়েকজন যাত্রী ছিটকে পড়ে ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হন। এ সময় ঘটনাস্থলে চারজন ও হাসপাতালে নেওয়ার পথে একজনের মৃত্যু হয়। আহত জাকারিয়া আহমদ বলেন, আজ সকালে সিএনজিচালিত অটোরিকশায় করে স্বজনের বাড়িতে যাওয়ার পথে এ দুর্ঘটনা ঘটে। জৈন্তাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) গোলাম দস্তগীর বলেন, মরদেহগুলো সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে অটোরিকশাটি থানায় নেওয়া হয়েছে।