• ২৬শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ১১ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ , ১৯শে সফর, ১৪৪৩ হিজরি

সারা দেশের মতো এখানে প্রশ্নবিদ্ধ নির্বাচন হোক আমি চাই না: ইসি কবিতা

প্রিয় সিলেট ডেস্ক
প্রকাশিত সেপ্টেম্বর ১৪, ২০২১
সারা দেশের মতো এখানে প্রশ্নবিদ্ধ নির্বাচন হোক আমি চাই না: ইসি কবিতা

নির্বাচন কমিশন (ইসি) প্রশ্নবিদ্ধ নির্বাচন চায় না বলে মন্তব্য করেছেন নির্বাচন কমিশনার কবিতা খানম। তিনি বলেন, আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন গ্রহণযোগ্য ও সুষ্ঠু করতে যা যা করা প্রয়োজন নির্বাচন কমিশন তাই করবে। প্রশ্নবিদ্ধ নির্বাচন কারও জন্যই কাম্য নয়।

মঙ্গলবার দুপুরে নওগাঁ সদর উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে নওগাঁর নিয়ামতপুর, মান্দা, মহাদেবপুর ও রাণীনগর উপজেলার নাগরিকদের মাঝে স্মার্ট জাতীয় পরিচয়পত্র বিতরণ কর্মসূচির উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে কবিতা খানম বলেন, গ্রহণযোগ্য ও সুষ্ঠু ইউপি নির্বাচন সম্পন্ন করতে ইতোমধ্যে নির্বাচন কমিশন প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছে। প্রশ্নবিদ্ধ কোনো নির্বাচন হোক এটা নির্বাচন কমিশন চায় না। সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন উপহার দেওয়ার জন্য প্রজাতন্ত্রের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সততা ও নিষ্ঠার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করতে হবে। পাশাপাশি দল-মত নির্বিশেষে নির্বাচনে অংশ নেওয়া প্রার্থীদের কাছ থেকেও নিরপেক্ষতা আশা করব।

তিনি বলেন, নওগাঁতে আমার জন্ম। সারা দেশের মতো এখানে কোনো প্রশ্নবিদ্ধ নির্বাচন হোক এটা আমি চাই না। এজন্য ডিসি, এসপি, নির্বাচন কর্মকর্তা থেকে শুরু করে মাঠ পর্যায়ে যারা দায়িত্ব পালন করবেন তারা যেন সততা ও নিষ্ঠার সঙ্গে কাজ করেন এই আহ্বান জানাব।

নওগাঁর জেলা প্রশাসক (ডিসি) হারুন-অর-রশীদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন নির্বাচন কমিশনের আইডিইএ (আইডেনটিফিকেশন সিস্টেম ফর অ্যানহ্যান্সিং অ্যাকসেস টু সার্ভিসেস) প্রকল্পের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আবুল কাশেম মো. ফজলুল কাদের। অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন- আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা ফরিদুল ইসলাম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার একেএম মামুন খান চিশতী, জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মাহমুদ হাসান প্রমুখ।

অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন সদর উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা রুহুল আমীন। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অতিথিদের বক্তব্য শেষে আমন্ত্রিত কিছু নাগরিকের হাতে স্মার্ট জাতীয় পরিচয়পত্র বিতরণ তুলে দিয়ে জেলার নিয়ামতপুর, মান্দা ও মহাদবেপুর ও রাণীনগর উপজেলায় স্মার্ট জাতীয় পরিচয়পত্র বিতরণ কর্মসূচির উদ্বোধন করেন ইসি কবিতা খানম।

  •  
  •  
  •  
  •  

প্রতিনিধি :: সিলেটের জৈন্তাপুরে ট্রাকচাপায় নিহত পাঁচজনের মধ্যে চারজন একই পরিবারের। আজ রোববার সকাল সাড়ে ছয়টার দিকে সিলেট-তামাবিল সড়কের জৈন্তাপুর ফেরিঘাট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত পাঁচজন হলেন জৈন্তাপুরের নিজপাট রুপচেন গ্রামের জামাল উদ্দিনের স্ত্রী সাবিয়া বেগম (৪০), সাবিয়ার মেয়ে সাকিয়া বেগম (৪), তিন মাস বয়সী ছেলে তাহমিদ হোসেন, ননদ হাবিবুন নেছা (৩৮) ও একই গ্রামের সিএনজিচালিত অটোরিকশার চালক হোসেন আহমদ (৩৫)। এ ঘটনায় আহত হয়ে সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন নিহত সাবিয়ার দেবর জাকারিয়া আহমদ (৪২) ও তাঁর স্ত্রী হাসিনা বেগম (৩০)। পুলিশ ও নিহত ব্যক্তিদের পরিবারসূত্র জানায়, যাত্রীবাহী একটি সিএনজিচালিত অটোরিকশা সকাল সাড়ে ছয়টার দিকে মহাসড়কে উঠলে সিলেট থেকে তামাবিলগামী একটি ট্রাক সেটিকে ধাক্কা দেয়। এতে সিএনজিচালিত অটোরিকশার কয়েকজন যাত্রী ছিটকে পড়ে ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হন। এ সময় ঘটনাস্থলে চারজন ও হাসপাতালে নেওয়ার পথে একজনের মৃত্যু হয়। আহত জাকারিয়া আহমদ বলেন, আজ সকালে সিএনজিচালিত অটোরিকশায় করে স্বজনের বাড়িতে যাওয়ার পথে এ দুর্ঘটনা ঘটে। জৈন্তাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) গোলাম দস্তগীর বলেন, মরদেহগুলো সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে অটোরিকশাটি থানায় নেওয়া হয়েছে।