• ৮ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ , ২৪শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ , ১০ই মহর্‌রম, ১৪৪৪ হিজরি

অনির্দিষ্টকালের জন্য সুনামগঞ্জ-ঢাকা বাস চলাচল বন্ধ!

প্রিয় সিলেট ডেস্ক
প্রকাশিত সেপ্টেম্বর ১৮, ২০২১
অনির্দিষ্টকালের জন্য সুনামগঞ্জ-ঢাকা বাস চলাচল বন্ধ!
Spread the love

সিলেট-সুনামগঞ্জ সড়কে চলাচলকারী সকল ধরণের বাস থামিয়ে চাঁদাবাজির অভিযোগে রোববার (১৯ সেপ্টেম্বর) সকাল ৬টা থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য সুনামগঞ্জ-ঢাকা রুটে বাস চলাচল বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

শনিবার (১৮ সেপ্টম্বর) দুপুরে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন সুনামগঞ্জ জেলা সড়ক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক নূরুল হক।

জানা গেছে, অনেকদিন ধরে সুনামগঞ্জ থেকে ঢাকায় আসা-যাওয়ার পথে সিলেট-বাইপাস সড়ক এলাকায় আন্তঃজেলা বাসে চাঁদাবাজি করে আসছে একটি চক্র। বার বার এ নিয়ে সিলেটের বিভাগীয় কমিশনার, পুলিশ কমিশনার, জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারকে অভিযোগ দেওয়া হলেও কোনো প্রকার ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি। ফলে সুনামগঞ্জ জেলা সড়ক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়ন বাস চলাচল বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। যদি চাঁদাবাজদের বেআইনি এ দৌড়াত্ম বন্ধ করা না হয়, তাহলে স্থানীয় (লোকাল) সড়কেও গাড়ি চলাচল বন্ধ করে দেবে বলা জানিয়েছে জেলা সড়ক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়ন।

এ ব্যাপারে দ্রুত পদক্ষেপ নিতে সরকারের উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন জেলা সড়ক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের নেতারা। সুনামগঞ্জ জেলা সড়ক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক নূরুল হক বলেন, সিলেটে একটি প্রভাবশালী মহল সুনামগঞ্জের বাস থামিয়ে কুমারগাও এলাকায় প্রতিটি বাস থেকে দীর্ঘদিন চাঁদাবাজি করে আসছে। বিষয়টি প্রশাসনকে জানানোর পরও তারা কোন ব্যবস্থা নেয়নি তাই আগামীকাল থেকে আন্তঃজেলা বাস চলাচল বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত হয়েছে।

জেলা বাস মিনিবাস মাইক্রবাস মালিক গ্রুপের সাধারণ সম্পাদক জুয়েল মিয়া বলেন, সুনামগঞ্জ থেকে সিলেটে গামীবাস সিলেটের তেমুখি পয়েন্ট এলাকায় থামিয়ে চাঁদাবাজী করে একটি গ্রুপ। প্রশাসনেরর কাছে দীর্ঘদিন যাবত বিষয়টি জানিয়ে কোন প্রতিকার না পাওয়ায় আন্তঃ জেলা বাস চলাচল বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

এ সিদ্ধান্তের ফলে, সুনামগঞ্জ ঢাকা, চট্টগ্রাম, কুমিল্লা, ময়মনসিংহ, বগুড়া, নোয়াখালী সহ ৫ টি রুটে আন্তঃ জেলা বাস চলাচল বন্ধ থাকবে। তবে সিলেট সুনামগঞ্জ রুটে বাস চলাচল স্বাভাবিক থাকবে।

প্রতিনিধি :: সিলেটের জৈন্তাপুরে ট্রাকচাপায় নিহত পাঁচজনের মধ্যে চারজন একই পরিবারের। আজ রোববার সকাল সাড়ে ছয়টার দিকে সিলেট-তামাবিল সড়কের জৈন্তাপুর ফেরিঘাট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত পাঁচজন হলেন জৈন্তাপুরের নিজপাট রুপচেন গ্রামের জামাল উদ্দিনের স্ত্রী সাবিয়া বেগম (৪০), সাবিয়ার মেয়ে সাকিয়া বেগম (৪), তিন মাস বয়সী ছেলে তাহমিদ হোসেন, ননদ হাবিবুন নেছা (৩৮) ও একই গ্রামের সিএনজিচালিত অটোরিকশার চালক হোসেন আহমদ (৩৫)। এ ঘটনায় আহত হয়ে সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন নিহত সাবিয়ার দেবর জাকারিয়া আহমদ (৪২) ও তাঁর স্ত্রী হাসিনা বেগম (৩০)। পুলিশ ও নিহত ব্যক্তিদের পরিবারসূত্র জানায়, যাত্রীবাহী একটি সিএনজিচালিত অটোরিকশা সকাল সাড়ে ছয়টার দিকে মহাসড়কে উঠলে সিলেট থেকে তামাবিলগামী একটি ট্রাক সেটিকে ধাক্কা দেয়। এতে সিএনজিচালিত অটোরিকশার কয়েকজন যাত্রী ছিটকে পড়ে ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হন। এ সময় ঘটনাস্থলে চারজন ও হাসপাতালে নেওয়ার পথে একজনের মৃত্যু হয়। আহত জাকারিয়া আহমদ বলেন, আজ সকালে সিএনজিচালিত অটোরিকশায় করে স্বজনের বাড়িতে যাওয়ার পথে এ দুর্ঘটনা ঘটে। জৈন্তাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) গোলাম দস্তগীর বলেন, মরদেহগুলো সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে অটোরিকশাটি থানায় নেওয়া হয়েছে।