• ২৬শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ১০ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ , ২০শে রবিউল আউয়াল, ১৪৪৩ হিজরি

আন্দোলন ব্যাহত করতে ষড়যন্ত্র করছে সরকার: মির্জা ফখরুল

প্রিয় সিলেট ডেস্ক
প্রকাশিত সেপ্টেম্বর ২০, ২০২১
আন্দোলন ব্যাহত করতে ষড়যন্ত্র করছে সরকার: মির্জা ফখরুল

আগামী দিনের আন্দোলন ও নির্বাচনের রূপরেখা চূড়ান্তে এবার নির্বাহী কমিটির সদস্য ও জেলা নেতাদের সঙ্গে বৈঠকে বসছে বিএনপির হাইকমান্ড। আগামীকাল থেকে দলের হাইকমান্ডের সঙ্গে ৩ দিনের এ বৈঠক নির্বাহী কমিটির ২৯৩ সদস্য ও জেলার শীর্ষ নেতারা উপস্থিত থাকবেন।

গুলশান কার্যালয়ে রোববার সংবাদ সম্মেলনে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এ তথ্য জানান।

তিনি অভিযোগ করেন, গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার আন্দোলন ব্যাহত করতে সরকার নানামুখী ষড়যন্ত্র করছে। শনিবারের স্থায়ী কমিটির সিদ্ধান্ত জানাতেই এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়েছে। করণীয় চূড়ান্তে এর আগে ১৪ থেকে টানা ৩ দিন সিরিজ বৈঠক করে বিএনপির হাইকমান্ড। সেখানে প্রথমদিন দলের চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ও নির্বাহী কমিটির ভাইস চেয়ারম্যান, দ্বিতীয়দিন বিএনপির নির্বাহী কমিটির সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব, যুগ্ম মহাসচিব, সাংগঠনিক সম্পাদক, সম্পাদক ও সহ-সম্পাদক এবং শেষ দিনের বৈঠকে দলের অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের কেন্দ্রীয় নেতারা অংশ নেন। তিন দিনের ওই বৈঠকে ২৮৬ জন নেতা উপস্থিত ছিলেন, যাদের মধ্যে ১১৮ জন বক্তব্য দেন।

এদিকে দ্বিতীয় দফা সিরিজ বৈঠকের সব প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। ইতোমধ্যে সংশ্লিষ্ট নেতাদের আমন্ত্রণ জানানো শুরু করেছেন দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতারা। সংবাদ সম্মেলনে বিএনপি মহাসচিব বলেন, আগের দিনের মতবিনিময় সভায় রাজনৈতিক ও সাংগঠনিক বিষয়ে আলোচনা হয়েছে। পুরো রাজনৈতিক পরিস্থিতি, বর্তমান পরিস্থিতি,? এক দলীয় শাসন প্রবর্তনের প্রচেষ্টা, বিরোধী দলের ওপর নির্যাতন, খালেদা জিয়াকে মুক্তি না দেয়া, মিথ্যা ও গায়েবি মামলা নিয়ে আলোচনা হয়েছে। ধারাবাহিক সভা শেষে সময়মতো আমাদের মতামতগুলো আপনারা জানতে পারবেন। জানতে পারবেন পরবর্তী কর্মপন্থাও।

তিনি বলেন, আমাদের বেশিরভাগ কমিটি তাদের পুনর্গঠনের কাজ শুরু করেছে, কাজ চলছে। অঙ্গসংগঠনগুলোরও কাজ শুরু হয়েছে। থানা পর্যায়ে, মাঠপর্যায়ে হয়ে গেছে, ইউনিয়ন পর্যায়ে হয়েছে। এখন জেলা পর্যায়ের হয়ে যাবে, হতে যাচ্ছে। করোনা মহামারির কারণে সম্মেলনগুলো করা সম্ভব হয়নি। বেশিরভাগ জায়গায় সম্মেলনের প্রস্তুতি আছে। ঠিক একই ভাবে বিএনপিরও যেসব মেয়াদোত্তীর্ণ কমিটি আছে তা নতুন করে আহ্বায়ক কমিটি গঠন করা হচ্ছে। তারা ওয়ার্ড ও ইউনিয়ন পর্যায় থেকে কাজ শুরু করেছে। কয়েকটি জেলায় সম্মেলন অতি দ্রুত শেষ হবে।

স্থায়ী কমিটির সিদ্ধান্ত প্রসঙ্গে মির্জা ফখরুল বলেন, সভায় শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের সমাধি নিয়ে সরকারের মিথ্যাচারের নিন্দা জানানো হয়েছে। সভা মনে করে জনগণকে বিভ্রান্ত করার লক্ষ্যে মিথ্যা তথ্য সংসদে উপস্থাপন করে জনগণের গণতান্ত্রিক অধিকার এবং গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার আন্দোলনকে দৃষ্টির আড়ালে রাখার একটি ষড়যন্ত্র করছে সরকার। এ ধরনের নিকৃষ্ট মিথ্যাচার থেকে বিরত থাকবার আহ্বান জানানো হয় সভা থেকে।

তিনি জানান, প্রস্তাবিত ব্যক্তিগত তথ্য সুরক্ষা আইনের খসড়া সরকারি ওয়েবসাইটে প্রকাশে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করা হয়। সভা মনে করে এ ধরনের আইন ব্যক্তিগত তথ্য সুরক্ষার কথা বলে নাগরিকের স্বাধীন মতপ্রকাশের অধিকার হরণ করার আরেকটি চক্রান্ত। এ আইন গণতন্ত্রের জন্য একটি বড় ধরনের হুমকি হয়ে দাঁড়াবে। সভায় জনগণের ব্যক্তিগত অধিকার এবং মতপ্রকাশের স্বাধীনতা অক্ষুণ্ন রাখার আহ্বান জানানো হয়। সভায় সংসদে ভাড়াভিত্তিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র চালু রাখার জন্য প্রণীত বিশেষ আইনের মেয়াদ আরও পাঁচ বছর বাড়িয়ে বিল পাশ করানোর তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জানানো হয়। নতুন করে পাঁচ বছর এই বিশেষ আইনের মেয়াদ বাড়িয়ে লুটপাটের ব্যবস্থা আরও দীর্ঘায়িত করা হলো। সভায় অবিলম্বে এ বিল বাতিল করার আহ্বান জানানো হয়।

কবে কাদের সঙ্গে বৈঠক : আগামীকাল থেকে শুরু হওয়া তিন দিনের সিরিজ বৈঠকে জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও জেলা সভাপতি মিলে মোট ৩৬৩ জনকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক ও দপ্তরের দায়িত্বে থাকা সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স যুগান্তরকে এমন তথ্য জানিয়ে বলেন, বৈঠকগুলো হবে বিভাগভিত্তিক। ইতোমধ্যে তাদের আমন্ত্রণপত্র পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে। বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার গুলশান কার্যালয়ে প্রতিদিন বিকাল সাড়ে তিনটায় এ বৈঠক হবে। এতে সভাপতিত্ব করবেন ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান। তিনি লন্ডন থেকে ভার্চুয়ালি যুক্ত থাকবেন। উপস্থিত থাকবেন স্থায়ী কমিটির সদস্যরাও।

এদিকে সিরিজ বৈঠক সফল করতে রোববার গুলশান কার্যালয়ে প্রস্তুতি সভা করেছে বিএনপি। এতে দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স, চেয়ারপারসনের একান্ত সচিব এবিএম আবদুস সাত্তার, সহদপ্তর সম্পাদক তাইফুল ইসলাম টিপু, বেলাল আহমেদ, সহতথ্য ও গবেষণা সম্পাদক রিয়াজউদ্দিন নসু প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

তিন দিনের বৈঠকের প্রথমদিন আগামীকাল মঙ্গলবার ঢাকা ও ফরিদপুর বিভাগের নির্বাহী কমিটির সদস্য ও জেলা সভাপতি (জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য নয়) মিলে মোট ১২৬ জনকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। পরদিন বুধবার বৈঠক হবে চট্টগ্রাম, কুমিল্লা, ময়মনসিংহ, সিলেট ও রংপুর বিভাগের নির্বাহী কমিটির সদস্য ও জেলা সভাপতি মিলে ১২৯ জনের সঙ্গে। শেষদিন বৃহস্পতিবার খুলনা, রাজশাহী ও বরিশাল বিভাগের নির্বাহী কমিটির সদস্য এবং জেলা সভাপতি মিলে ১০৮ জনকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে।

  •  
  •  
  •  
  •  

প্রতিনিধি :: সিলেটের জৈন্তাপুরে ট্রাকচাপায় নিহত পাঁচজনের মধ্যে চারজন একই পরিবারের। আজ রোববার সকাল সাড়ে ছয়টার দিকে সিলেট-তামাবিল সড়কের জৈন্তাপুর ফেরিঘাট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত পাঁচজন হলেন জৈন্তাপুরের নিজপাট রুপচেন গ্রামের জামাল উদ্দিনের স্ত্রী সাবিয়া বেগম (৪০), সাবিয়ার মেয়ে সাকিয়া বেগম (৪), তিন মাস বয়সী ছেলে তাহমিদ হোসেন, ননদ হাবিবুন নেছা (৩৮) ও একই গ্রামের সিএনজিচালিত অটোরিকশার চালক হোসেন আহমদ (৩৫)। এ ঘটনায় আহত হয়ে সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন নিহত সাবিয়ার দেবর জাকারিয়া আহমদ (৪২) ও তাঁর স্ত্রী হাসিনা বেগম (৩০)। পুলিশ ও নিহত ব্যক্তিদের পরিবারসূত্র জানায়, যাত্রীবাহী একটি সিএনজিচালিত অটোরিকশা সকাল সাড়ে ছয়টার দিকে মহাসড়কে উঠলে সিলেট থেকে তামাবিলগামী একটি ট্রাক সেটিকে ধাক্কা দেয়। এতে সিএনজিচালিত অটোরিকশার কয়েকজন যাত্রী ছিটকে পড়ে ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হন। এ সময় ঘটনাস্থলে চারজন ও হাসপাতালে নেওয়ার পথে একজনের মৃত্যু হয়। আহত জাকারিয়া আহমদ বলেন, আজ সকালে সিএনজিচালিত অটোরিকশায় করে স্বজনের বাড়িতে যাওয়ার পথে এ দুর্ঘটনা ঘটে। জৈন্তাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) গোলাম দস্তগীর বলেন, মরদেহগুলো সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে অটোরিকশাটি থানায় নেওয়া হয়েছে।