• ১০ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ , ২৬শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ , ১২ই মহর্‌রম, ১৪৪৪ হিজরি

ফেসবুকে চাকুরী পেলেন শাবির দুই শিক্ষার্থী

প্রিয় সিলেট ডেস্ক
প্রকাশিত অক্টোবর ২৮, ২০২১
ফেসবুকে চাকুরী পেলেন শাবির দুই শিক্ষার্থী
Spread the love

বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার হিসেবে চাকুরী পেয়েছেন শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবিপ্রবি) দুই শিক্ষার্থী।

চাকুরী পাওয়া শিক্ষার্থীরা হলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের ২০১৩-১৪ সেশনের শিক্ষার্থী মওদুদ আহমেদ শাহরিয়ার এবং মো. নাজিম উদ্দিন।

বৃহস্পতিবার (২৮ অক্টোবর) দুপুরে ফেসবুকে চাকরী পাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেন তারা। নিজের অনুভূতি ব্যক্ত করে মওদুদ আহমেদ শাহরিয়ার বলেন, ফেসবুকের মতো জায়গায় চাকুরী পাওয়াটা মোটেই সহজসাধ্য ছিল না। তারা তিন ধাপে ভাইবা নিয়েছে। তিন নম্বর ধাপে ৪টা ভাইবা দিয়েছি। প্রতিটি ভাইবার জন্য সময় নির্ধারণ ছিল ৪৫ মিনিট। শাবিপ্রবিতে থাকাকালীন সময়ে প্রোগ্রামিংসহ বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করতাম। যার অভিজ্ঞতা ফেসবুকের ভাইবায় কাজে দিয়েছে।’

তিনি বলেন, আমাদের দেশের অনেক শিক্ষার্থী আছে যারা ফেসবুক, গুগলের মতো জায়গায় চাকরী করার মতো যোগ্যতা রাখে। তবে সঠিক গাইডলাইন না থাকায় তারা সেখানে সুযোগ পারছেন না। পরিকল্পনা রয়েছে এসব শিক্ষার্থীদের জন্য ভবিষ্যতে কাজ করার।

মো. নাজিম উদ্দিন বলেন, অনেক আগে থেকেই স্বপ্ন ছিল পৃথিবীর টপক্লাস ইঞ্জিনিয়ারদের সাথে টেক জায়ান্টে কাজ করবো। বিশ্ববিদ্যালয় জীবন শেষ হওয়ার পর থেকেই প্রস্তুতি নেয়া শুরু করি গুগল, ফেসবুকের জন্য। অবশেষে সফল হয়েছি।

তিনি বলেন, সবসময়ই নিজের উপর আত্মবিশ্বাস ছিল। অবশেষে এই বছর জুনে ফেসবুক এবং গুগল থেকে ইন্টারভিউর জন্য যোগাযোগ করে। প্রায় দুই মাসব্যাপী ইন্টারভিউ শেষে ফেসবুক, গুগল দুই কোম্পানি থেকেই অফার আসে। সবকিছু বিবেচনায় আমি ফেসবুকের লন্ডন অফিসে যোগদানে সম্মতি জানাই। সবকিছু ঠিক থাকলে আগামী ফেব্রুয়ারিতে চাকুরীতে জয়েন করবো।

প্রতিনিধি :: সিলেটের জৈন্তাপুরে ট্রাকচাপায় নিহত পাঁচজনের মধ্যে চারজন একই পরিবারের। আজ রোববার সকাল সাড়ে ছয়টার দিকে সিলেট-তামাবিল সড়কের জৈন্তাপুর ফেরিঘাট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত পাঁচজন হলেন জৈন্তাপুরের নিজপাট রুপচেন গ্রামের জামাল উদ্দিনের স্ত্রী সাবিয়া বেগম (৪০), সাবিয়ার মেয়ে সাকিয়া বেগম (৪), তিন মাস বয়সী ছেলে তাহমিদ হোসেন, ননদ হাবিবুন নেছা (৩৮) ও একই গ্রামের সিএনজিচালিত অটোরিকশার চালক হোসেন আহমদ (৩৫)। এ ঘটনায় আহত হয়ে সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন নিহত সাবিয়ার দেবর জাকারিয়া আহমদ (৪২) ও তাঁর স্ত্রী হাসিনা বেগম (৩০)। পুলিশ ও নিহত ব্যক্তিদের পরিবারসূত্র জানায়, যাত্রীবাহী একটি সিএনজিচালিত অটোরিকশা সকাল সাড়ে ছয়টার দিকে মহাসড়কে উঠলে সিলেট থেকে তামাবিলগামী একটি ট্রাক সেটিকে ধাক্কা দেয়। এতে সিএনজিচালিত অটোরিকশার কয়েকজন যাত্রী ছিটকে পড়ে ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হন। এ সময় ঘটনাস্থলে চারজন ও হাসপাতালে নেওয়ার পথে একজনের মৃত্যু হয়। আহত জাকারিয়া আহমদ বলেন, আজ সকালে সিএনজিচালিত অটোরিকশায় করে স্বজনের বাড়িতে যাওয়ার পথে এ দুর্ঘটনা ঘটে। জৈন্তাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) গোলাম দস্তগীর বলেন, মরদেহগুলো সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে অটোরিকশাটি থানায় নেওয়া হয়েছে।